Violence & Rights

ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করছেন সাইবার দুর্বৃত্তরা!

ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করছেন সাইবার দুর্বৃত্তরা!

Cyber-miscreants are creating the trap of cheating on Facebook!

 trap of cheating on Facebook

আজকে আমরা ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ নিয়ে কথা বলব এবং সেই সাথে সবাইকে আহ্বান করবো যে,ফেসবুক এঁর এই প্রতারণার ফাঁদ থেকে সচেতন হওয়ার।

ইন্টারনেট জুড়েই ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ সবচেয়ে জনপ্রিয়। এমন ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদে ভুলে গেলেই সর্বনাশ।

সাইবার বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিধবা, বিপত্নীক ও একলা থাকা লোকজনকে লক্ষ্য করেই এসব ফাঁদ। রোমান্টিক সম্পর্ক তৈরিতে উৎসাহ করা হয়। এদের ফাঁদে একবার পা দিলেই নানা কৌশলে অর্থ হাতিয়ে নেওয়াসহ ব্ল্যাকমেলের শিকার হওয়ার ঝুঁকি তৈরি হয়। প্রতারকেরা উপহার, অর্থসহ নানা বিষয়ের প্রলোভন দেখিয়ে যোগাযোগ করে। লোভনীয় বার্তা পাঠিয়ে বা ‘ফিশিং’ করে বিভিন্ন তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে।

ফেসবুকে(facebook)বিভিন্ন লোভনীয় লিংক বা স্ক্যাম ছড়িয়ে শিকার ধরার চেষ্টা করা হয়। ফেসবুকে সম্প্রতি ছড়িয়ে পড়া কয়েক ধরনের প্রতারণা সম্পর্কে সচেতন হওয়া জরুরি। ফেসবুক(facebook)ব্যবহারকারীদের ঠকাতে অনেক দিন ধরেই নানা রূপে এসব স্ক্যাম রয়ে গেছে। এখন আরও নতুন নতুনরূপে তা সামনে আসছে।

ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ

নাইজেরিয়ার রাজপুত্র

ইন্টারনেট জুড়েই একটি স্ক্যাম সবচেয়ে জনপ্রিয়। তা হচ্ছে নাইজেরিয়ার রাজপুত্রের নামে প্রতারণা। স্ক্যামে বলা হয়, নাইজেরিয়ার রাজপুত্র বা তাঁর পরিবারের সদস্যরা এখন বেজায় বিপদে। তাই দেশ থেকে দ্রুত অর্থ স্থানান্তর করতে চাইছে। ফেসবুক ব্যবহারকারীকে ওই অর্থ গ্রহণ করার প্রলোভন দেখানো হয়। এর বিনিময়ে শুধু অর্থ আনার খরচ চাওয়া হয়।

 trap of cheating on Facebook

অনেকেই এ প্রলোভনে পড়ে যোগাযোগ করে ফেলেন। এখন অবশ্য এ ধরনের প্রতারকদের বিরুদ্ধে অনেকেই সচেতন হয়েছেন। এতে নাইজেরিয়ার বদলে অন্যান্য দেশের পরিচিত কোনো পরিবারের সদস্যদের নাম ভাঙিয়ে এ ধরনের প্রতারণা করা হতে পারে।

স্পেনের বন্দী

ফেসবুকে এমন লিংক পেয়ে যেতে পারেন, যাতে দাবি করা হয় স্পেনের কেউ একজন প্রচুর অর্থের মালিক বিপদে পড়েছেন। তাঁকে আটকে রাখা হয়েছে। তিনি জরুরি অর্থ পাঠাতে চান। এ জন্য সাহায্য করলে তিনি পুরো অর্থ ফেসবুক ব্যবহারকারীর কাছে পাঠিয়ে দেবেন।

এরপর একটা ভাগ তিনি পাবেন। এ ছাড়াও নানা প্রলোভন দেখিয়ে অর্থ পাঠাতে উৎসাহী করে তোলে সাইবার দুর্বৃত্তরা। আগে মেইলে এ ধরনের প্রতারণা বেশি হতো। তবে এখন সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও এ প্রতারণা ছড়িয়েছে।

গাড়ি বিক্রি

অনলাইনে নানা বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে গাড়ি বিক্রির কথা জানাতে পারে সাইবার প্রতারকেরা। এ ছাড়া সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও নানাভাবে গাড়ি কেনার ক্ষেত্রে প্রলোভন দেখায়। এ ক্ষেত্রে অনেক পরিচিত সাইট ব্যবহার করতে পারে। গাড়ি কিনতে আগ্রহী ক্রেতাদের লক্ষ্য করে এ ধরনের বিজ্ঞাপন দেখানো হয়। এরপর অর্থ স্থানান্তরের জন্য ভুয়া মাধ্যম ব্যবহার করে প্রতারণা করতে পারে। অনলাইনে গাড়ি কেনা ও অনলাইনে আগাম অর্থ পাঠানোর আগে সতর্ক করেন গবেষকেরা।

 trap of cheating on Facebook

ভুয়া চাকরি

ফেসবুকে অনেক বড় প্রতিষ্ঠানের চাকরির বিজ্ঞাপন দিয়ে ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করছেন প্রতারকরা। এই প্রতারকরা মূলত আগে অর্থ চেয়ে চাকরি দেয়ার কথা বলে থাকেন পরে অর্থ নিয়ে উধাও হয়ে যান। এজন্য চাকরিতে আবেদন করার আগে এবং কোনো সাক্ষাৎকারে যাওয়ার আগে তা প্রতারণা কি না, এ বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে নিন। অনলাইনে নিয়োগের ক্ষেত্রে লেনদেনে সতর্ক থাকুন।

বাড়ি ভাড়া

অনেকেই ফেসবুকে সুন্দর বাড়ির ছবি দেখে ভাড়া নিতে চান।কিন্তু বাড়ি ভাড়ার বিজ্ঞাপন দিয়ে ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করছেন প্রতারকরা। এজন্য বাড়ি ভাড়া নেওয়ার আগে বাড়ির প্রকৃত অবস্থা জানা প্রয়োজন। ফেসবুকে অনেক সময় প্রতারকেরা ভিন্ন বাড়ির ছবি দিয়ে বাড়ি কিনতে উৎসাহী করে তোলে। এ ক্ষেত্রে আগাম অর্থ পরিশোধ করলে ধোঁকা খেতে হতে পারে।

ফেসবুক রোমান্স

অনেকেই অনলাইনে সঙ্গীর খোঁজ করেন। সুযোগটা কাজে লাগিয়ে ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করছেন প্রতারকরা। ডিজিটাল প্রতারণার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি অর্থ লোকসান হয়েছে অনলাইন রোমান্সের ফাঁদে পা দিয়েই। ২০১৮ সালে ১৪ কোটি ৩০ লাখ ডলার হাতিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। ফেসবুকে বিভিন্ন সুন্দরী মেয়ে বা সুন্দর ছেলের পোস্ট দিয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগে আগ্রহী করে তোলে দুর্বৃত্তরা। এমন ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদে প্রলোভনে গেলেই সর্বনাশ।

 trap of cheating on Facebook

গিফট কার্ড

আপনি ফেসবুকে লটারি জিতেছেন বা কোনো উপহার জিতেছেন বলে টাইমলাইনে পোস্ট করে ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করছেন প্রতারকরা। বিনা মূল্যে উপহারের নমুনা দেখিয়ে সে লিংকটিতে ব্যবহারকারীকে ক্লিক করতে আকৃষ্ট করে দুর্বৃত্তরা।

বর্তমানে ফেসবুকের দ্রুত ছড়িয়ে পড়া স্ক্যামগুলোর একটি এই গিফট কার্ড স্ক্যাম। এ ধরনের লিংকে ক্লিক করলে ব্যক্তিগত তথ্য চাওয়া হয়। এসব তথ্য দেওয়া হলেও কোনো উপহার পাওয়া যায় না বরং কম্পিউটারে ম্যালওয়্যার ডাউনলোড হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

তারকাদের ভিডিও

ফেসবুকে তারকাদের নিয়ে বা সমসাময়িক বিভিন্ন ঘটনা সংশ্লিষ্ট গুজব নিয়ে ফেসবুকে প্রতারণার করছেন প্রতারকরা। অনেক সময় এ ধরনের খবরকে ‘ব্রেকিং নিউজ’, ‘গোপন খবর’, ‘গুমর ফাঁস’ ‘তথ্য ফাঁস’ ‘আড়ালের খবর’ ইত্যাদি নামে পরিবেশন করা হয়। ফেসবুকে চটকদার পোস্ট দিয়ে তাতে অধিকাংশ সময় লাইক চাওয়া হয়।

ইসেটের বিশ্লেষকেদের পরামর্শ হচ্ছে, যে পোস্টগুলোতে লাইক চাওয়া হয় সে পোস্টগুলোতে ক্লিক করা থেকে বিরত থাকুন। খবরের যে উত্সগুলো আপনার পরিচিত নয় সে সাইটগুলোর খবরে ক্লিক করলে ম্যালওয়্যার আক্রমণের ঝুঁকি থাকে। আসল খবরের আদলে সাইবার দুর্বৃত্তরা ফেসবুকে ভুয়া নিউজের লিংক পোস্ট করে তাদের উদ্দেশ্য সফল করে।

 trap of cheating on Facebook

রিয়ান্না সেক্স টেপ

ফেসবুকে বিভিন্ন তারকাকে নিয়ে স্ক্যাম রয়েছে। এ ধরনের স্ক্যাম ফেসবুকে ৭.৫৩ শতাংশ জনপ্রিয়। মাইলি সাইরাস, কিম কারদাশিয়ান কিংবা রিয়ান্নাকে নিয়ে ফেসবুকে অসংখ্য স্ক্যাম রয়েছে। নতুন ও পুরোনো অনেক স্ক্যাম লিংক আপনাকে বোকা বানাতে পারে। মনে রাখবেন, ফেসবুকে রিয়ান্নার সেক্স ভিডিও নিয়ে যত লিংক পাবেন সব ভুয়া। তাই এতে ক্লিক করবেন না।

গোপন বোন

ফেসবুকে ‘গোপন বোন’ পরিচয়ের একটি নেটওয়ার্ক দ্রুত ছড়াচ্ছে। আকর্ষণীয় উপহারের প্যাকেজের লোভ দেখিয়ে নারী ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ঠকাতে ‘গোপন বোন’ পরিচয় ব্যবহার ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করছেন প্রতারকরা। ফেসবুক ব্যবহারকারীদের ইনবক্সে কিংবা নিউজফিড আকারে আকর্ষক একটি উপহার বিনিময়ের বার্তাটি চলে আসতে পারে।

‘সিক্রেট সিস্টারস গিফট এক্সচেঞ্জ’ নামের এই বার্তায় উপহার পাঠানোর জন্য ব্যবহারকারীকে প্রলুব্ধ করা হয়। বলা হয়, যদি গোপনে ১০ ডলার মূল্যের একটি উপহার কাউকে পাঠিয়ে তালিকায় নাম লেখানো যায়, তবে এই রকম ৬ থেকে ৩৬টি পর্যন্ত উপহার পাওয়া যাচ্ছে।

 trap of cheating on Facebook

তারকাদের দিয়ে ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ

পুলিশের সাইবার ক্রাইম তদন্তকারী সূত্র জানায়, নাট্যনির্মাতা রেদওয়ান রনির নামে ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে অভিনয়ের কথা বলে টাকা হাতিয়ে নিয়েছিল এক যুবক।

মাশরাফি বিন মর্তুজাকে নিয়ে ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ

অভিনেতা আরিফিন শুভর নামে আছে বেশ কিছু আইডি। একটি আইডি থেকে প্রতারণার অভিযোগ করেছেন ওই তারকা। একইভাবে কণ্ঠশিল্পী হাবিব ওয়াহিদ, হৃদয় খান, ইমরান, দিলশাদ নাহার কণা, নায়িকা মেহ্জাবীন চৌধুরী, মাহিয়া মাহি, পরীমণি, মৌসুমী, পূর্ণিমা, শাবনূর, রেসি, ববি, নায়ক শাকিব খান, রিয়াজ, ফেরদৌস, বাপ্পি, ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোস্তাফিজুরসহ জনপ্রিয় সব তারকার নামেই ভুয়া আইডি আছে।

 trap of cheating on Facebook

শেখ হাসিনাকে নিয়ে ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ

সূত্রে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে ছয়টি ও তাঁর কন্যা সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের নামে একটি অ্যাকাউন্ট খোলে ওমর ফারুক নামের এক ব্যক্তি। এসব আইডিতে সরকারের উন্নয়ন প্রকল্পের ছবি দিয়ে নিজের নম্বর দেয় তিনি। অনেকে যোগাযোগের চেষ্টা করলে কৌশলে চ্যাটিংয়ে যায় সে।

এরপর কাজের তদবিরের কথা বলে টাকা হাতিয়ে নেয়। একই কৌশলে স্পিকারসহ বিভিন্ন নেতাদের নামে ৩৬টি অ্যাকাউন্ট খোলে ফারুক। চার সহযোগীসহ গ্রেপ্তারের পর এখন ফারুককে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ তৈরি করছেন সাইবার দুর্বৃত্তরা। এসব ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদ থেকে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহবান জানাচ্ছি। এমন কোন ফেসবুকে প্রতারণার ফাঁদে পা দিবেন না,যাতে আপনার সর্বনাশ হয়ে যায়।

পোস্টটি ভালো লাগলে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিবেন এবং Factarticle.com এর সঙ্গেই থাকবেন।

BY:Factarticle.com

Comments

Tags
Back to top button
Close
Close