All Exam

এসএসসি বাংলা ২য় সাজেশন ২০২০ ( ssc suggestion 2020 ) বিশেষ প্রস্তুতি

২০২০ সালের শেষ মুহূর্তের  এসএসসি বাংলা ২য় সাজেশন ২০২০  ( ssc suggestion 2020 bangla 2nd paper ) আপনাদের জন্যই আজকের আমাদের এই কনটেন্টা। আমরা চাই, আপনারা ভালোভাবে এসএসসি পরীক্ষা দেন। আপনারাই আমাদের দেশের ভবিষ্যৎ,আপনারাই এ দেশকে উন্নতির শিখরে তুলবেন।

আমরা আজকে-  বাংলা ২য় , ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার  সাজেশন হিসেবে দেখাবো। শেষ প্রস্তুতি হিসেবে লিখেছেন- লুৎফা বেগম, সিনিয়র শিক্ষক, বিএএফ শাহীন কলেজ, কুর্মিটোলা, ঢাকা

আমরা এই শেষ প্রস্তুতি শুধু শেয়ার করছি এতে যদি কারও উপকারে আসে তাহলে আমরা গর্বিত।

আমার কথা– আপনারা কখনোই অসৎভাবে এসএসসির পরীক্ষার রেজাল্ট ভালো করার চেষ্টা করবেন না এতে আপ্নারই ক্ষতি। অনেক অসৎলোক আপনাকে প্রলোভন দেখাবে যে, এসএসসির প্রশ্নপত্র এর বিষয়ে।

কিন্তু সেখানে দেখা যাবে,প্রশ্ন তো দুরের কথা- প্রথমে টাকা হাতিয়ে নিয়ে,প্রলোভন দেখিয়ে আপনার শেষ প্রস্তুতিকে নষ্ট করে দিবে ফলে, আপনার এসএসসি পরীক্ষা খারাপ হওয়ার সম্ভবনা থাকবে। সুতরাং আপনার কখনোই অসৎভাবে কিছু করার চেষ্টা করবেন না। প্লীজ কখনোই না।

২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার সাজেশন প্রস্তুতি হিসেবে যেভাবে নিবেন-

  • এসএসসি পরীক্ষার্থ আপনাকে অনেক বেশি কৌশলী হতে হবে। সারা দিন শুধু বই নিয়ে বসে থাকলেই যে পড়ালেখা ভালো হবে, এমন কিন্তু কোনো কথা নেই। রুটিনে বিশ্রামের জন্যও যথেষ্ট সুযোগ রাখতেই হবে।
  • প্রতিদিন ১২ থেকে ১৪ ঘণ্টা করে পড়াশোনা করলেই যে এসএসসি তে ভালো রেজাল্ট করবেন এমনটা না। আপনি প্রতিদিন কত ঘণ্টা করে পড়াশোনা করবেন, তা নির্ভর করবে সম্পূর্ণভাবে আপনার ব্যক্তিগত সামর্থ্যের ওপর। আপনি যদি অনুভব করেন, সাত থেকে ঘণ্টা পড়ালেখা করে খুব ভালোভাবে প্রস্তুতি নিতে পারছেন, তাহলে আপনার জন্য সেটাই যথেষ্ট।
  • অনেকেই একই বিষয়ের ওপর অনেকগুলো বই কিনেছেন, কিন্তু দিন শেষে কোনোটাই ঠিকমতো রপ্ত করতে পারলেন না। এতে করে লাভের চেয়ে ক্ষতির শঙ্কাই কিন্তু বেশি থাকে। কোনো বিষয়ের ওপর মানসম্মত একটি বা দুটি বইই যথেষ্ট।
  • একটি সাদা কাগজে সিরিয়াল মতো উল্টো দিক থেকে ২০ থেকে ১ পর্যন্ত লিখে টাঙিয়ে রাখুন এবং প্রতিদিন একটি করে দিন কাটুন। এক দিন করে যখন কমতে থাকবে, আপনি আরও বেশি করে পড়ার তাগিদ অনুভব করবেন। দেখবেন, এই কাজ আপনাকে পড়ালেখার দিকে সব সময় আকর্ষিত করবে।

এসএসসি বাংলা ২য় সাজেশন ২০২০ ( ssc suggestion 2020 bangla 2nd paper )

Depend Of Content-

  • এসএসসি  সাজেশন ২০২০
  • এসএসসি বাংলা সাজেশন ২০২০
  • এসএসসি বাংলা ২য় সাজেশন ২০২০
  • ssc suggestion 2020
  • ssc suggestion 2020 english
  • এসএসসি সাজেশন ২০২০
  • ssc bangla 2nd paper suggestion 2020
  • ssc bangla 2nd paper question 2020
  • ssc bangla 2nd paper board question 2020
  • ssc bangla 2nd paper mcq answer 2020
  • ssc bangla 2nd paper question 2020
  • ssc bangla 2nd paper question 2020 dhaka board
  • ssc bangla 2nd paper board question 2020
  • ssc bangla 2nd paper mcq 2020

এসএসসি বাংলা ২য় সাজেশন ২০২০

রচনামূলক প্রশ্ন

সময় : ২ ঘণ্টা ৩০ মিনিট –  পূর্ণমান : ৭০

১। যেকোনো একটি বিষয়ে অনুচ্ছেদ লেখো :  ১০

(ক) গ্রাম্য মেলা

(খ) বই পড়ার আনন্দ

২। যেকোনো একটি বিষয়ে পত্র লেখো :  ১০

ক) মনে করো, তোমার নাম সাকিব। তুমি ঢাকায় বসবাস করো। সম্প্রতি পড়া একটি বই সম্পর্কে নিজের অনুভূতি প্রকাশ করে তোমার জামালপুরের বন্ধু খালিদকে একটি পত্র লেখো।

অথবা,

খ) মনে করো তুমি নওরিন, নান্দিনা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। শিক্ষা সফরে যাওয়ার অনুমতি প্রার্থনা করে বিদ্যালয়ের প্রধানের নিকট একটি আবেদনপত্র লেখো।

৩। (ক) সারাংশ লেখো : ১০

বাল্যকাল হইতেই আমাদের শিক্ষার সহিত আনন্দ নাই। কেবল যাহা কিছু নিতান্ত আবশ্যক, তাহাই কণ্ঠস্থ করিতেছি। তেমনি করিয়া কোনোমতে কাজ চলে মাত্র; কিন্তু মনের বিকাশ লাভ হয় না। হাওয়া খাইলে পেট ভরে না, আহার করিলে পেট ভরে; কিন্তু আহারাদি রীতিমতো হজম করিবার জন্য হাওয়া আবশ্যক। তেমনি একটি শিক্ষাপুস্তকের রীতিমতো হজম করিতে অনেক অপাঠ্য পুস্তকের সাহায্য আবশ্যক। ইহাতে আনন্দের সহিত পড়িতে পারিবার শক্তি অলক্ষিতভাবে বৃদ্ধি পাইতে থাকে। গ্রহণশক্তি, ধারণশক্তি, চিন্তাশক্তি বেশ সহজে ও স্বাভাবিক নিয়মে বল লাভ করে।

অথবা, 

(খ) সারমর্ম লেখো :

একদা ছিল না জুতা চরণ যুগলে

দহিল হৃদয় মম সেই ক্ষোভানলে।

ধীরে ধীরে চুপি চুপি দুঃখাকুল মনে

গেলাম ভজনালয়ে ভজন কারণে।

দেখি সেথা একজন পদ নাহি তার

অমনি জুতার খেদ ঘুচিল আমার।

পরের দুঃখের কথা করিলে চিন্তন,

আপনার মনে দুঃখ থাকে কতক্ষণ।

৪। যেকোনো একটি ভাবসম্প্রসারণ করো : ১০

(ক) চরিত্র মানুষের অমূল্য সম্পদ

(খ) সংসার সাগরে দুঃখ-তরঙ্গের খেলা

আশা তার একমাত্র ভেলা।

৫। যেকোনো একটি বিষয়ে প্রতিবেদন রচনা করো : ১০

ক) মনে করো, তোমার নাম তানিয়া পারভীন। তোমার বিদ্যালয়ে বছরের প্রথম দিন সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় ‘বিনা মূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ’ কার্যক্রমের ওপর প্রধান শিক্ষক বরাবর একটি প্রতিবেদন রচনা করো।

অথবা,  

খ) মনে করো, তুমি কামরুল। দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকার ঢাকা অঞ্চলের একজন প্রতিনিধি। ‘বাড়ছে শিশুশ্রম : রুদ্ধ হচ্ছে শিক্ষার দ্বার’ শিরোনামে পত্রিকায় প্রকাশের জন্য একটি প্রতিবেদন রচনা করো।

৬। যেকোনো একটি বিষয়ে প্রবন্ধ রচনা করো :            ২০

ক) স্বদেশপ্রেম

খ) অধ্যবসায়

গ) কৃষিকাজে বিজ্ঞান

এসএসসি বাংলা ২য় সাজেশন ২০২০ বহু নির্বাচনী অভীক্ষা

সময় : ৩০ মিনিট – পূর্ণমান : ৩০

১।        আদেশ, উপদেশ, নিষেধ—এগুলো ক্রিয়ার কোন ভাব?

ক) সাপেক্ষ ভাব   খ) অনুজ্ঞা ভাব                গ) নির্দেশক ভাব  ঘ) আকাঙ্ক্ষা ভাব

২।        ‘যা দমন করা কষ্টকর’—এর সংকুচিত রূপ হলো—

ক) অদম্য           খ) দুর্জয়                         গ) দুর্নিবার          ঘ) দুর্দমনীয়

৩।        কোনটি পশ্চাৎ দন্তমূলীয় বর্ণ?

ক) শ     খ) ষ                  গ) স     ঘ) হ

৪।        বাক্যের ক্ষুদ্রতম একক কী?

ক) শব্দ   খ) বর্ণ                গ) ধ্বনি ঘ) চিহ্ন

৫।        ‘সাহেব’ শব্দের বহুবচন কোনটি?

ক) সাহেবান                খ) সাহেববৃন্দ

গ) সাহেবগণ                   ঘ) সাহেবরা

৬।        ‘সিট্কা’ এর আদি গণ কোনটি?

ক) চট্্কা                      খ) উল্্টা                                  গ) বিগ্্ড়া                     ঘ) ছোব্লা

৭।        ইতিহাস বিষয়ে অভিজ্ঞ যিনি—এর সংক্ষিপ্ত রূপ কোনটি?

ক) ঐতিহাসিক                 খ) ইতিহাসবেত্তা               গ) দার্শনিক                     ঘ) গবেষক

৮।        মুলা মুলো, শিকা শিকে কোন স্বরসংগতির উদাহরণ?

ক) প্রগত                        খ) পরাগত                      গ) মধ্যগত                      ঘ) অনোন্য

৯।        অ-কারে অ-কারে আ-কার হয়েছে কোনটিতে?

ক) সিংহাসন                    খ) মহার্ঘ                                    গ) হিমাচল                      ঘ) কারাগার

১০।      নিচের কোনটি বিদেশি ধাতু?

ক) থাক্              খ) শুন্                           গ) ডাক্              ঘ) ঘষ্

১১।      উপজীবিকা অর্থে ‘ইয়া’ প্রত্যয় যুক্ত শব্দ কোনটি?

ক) জেলে                        খ) মেটে                                     গ)  বেলে                        ঘ) খুনে

১২।      ক্রমশ অর্থে যৌগিক ক্রিয়ার উদাহরণ কোনটি?

ক) কথাটা ছড়িয়ে পড়েছে

খ) বৃষ্টি থেকে গেল

গ) লবণটা চেখে দেখ

ঘ) চা জুড়িয়ে যাচ্ছে

১৩।      ‘ইতরবিশেষ’—বাগধারাটির অর্থ কী?

ক) ভালো-মন্দ     খ) পক্ষপাতিত্ব                 গ) গুরুত্বহীন       ঘ) পার্থক্য

১৪।      নিচের কোন বাক্যটিতে অব্যয়ের বিশেষণ ব্যবহৃত হয়েছে?

ক) রকেট অতিদ্রুত চলে।

খ) ধীরে ধীরে বায়ু বয়।

গ) ধিক তারে শতধিক নির্লজ্জ যে জন।                                   ঘ) এ ব্যাপারে সে অতিশয় দুঃখিত।

১৫।      কোন বাক্যে অপাদান কারকে সপ্তমী বিভক্তির প্রয়োগ হয়েছে?

ক) ঘোড়াকে চাবুক মার।

খ) আমি কি ডরাই সখি ভিখারি রাঘবে?                                 গ) এ দেহে প্রাণ নেই।       ঘ) পাগলে কী না বলে।

১৬।      বিষয়ক অর্থে ‘ষ্ণিক (ইক)’ প্রত্যয় যুক্ত হয়েছে কোন শব্দটিতে?

ক) বৈজ্ঞানিক                   খ) সাহিত্যিক                   গ) হৈমন্তিক                    ঘ) সামরিক

১৭।      কোনটি ক্রমবাচক সংখ্যা শব্দ?

ক) পনেরো                      খ) দোসরা                      গ) বারো                         ঘ) নবম

১৮।      কোন পদাশ্রিত নির্দেশকটি নির্দিষ্টতা ও অনির্দিষ্টতা উভয় অর্থেই ব্যবহৃত হয়?

ক) কেতা                        খ) টুকু                           গ) পাটি              ঘ) গাছি

১৯।      কোনটি চতুর্থী তত্পুরুষ সমাসের উদাহরণ?

ক) হজযাত্রা                    খ) হীরক খচিত                গ) রাজপথ                      ঘ) বিশ্ববিখ্যাত

 

২০।      কোনটি সরল বাক্য?

ক) সত্য কথা বলিনি, তাই বিপদে পড়েছি                   খ) মেঘ গর্জন করলে ময়ূর নৃত্য করে                         গ) বিপদ এবং দুঃখ একসময়ে আসে                           ঘ) ‘যতই করিবে দান, তত যাবে বেড়ে।’

২১।      ‘তুমি এত নীচ’ বাক্যটি দ্বারা কী প্রকাশ পেয়েছে?

ক) বিরক্তি                       খ) লজ্জা                                     গ) ধিক্কার                        ঘ) ঘৃণা

২২।      তিনি গতকাল হাটে যাননি। বাক্যটির ক্রিয়া কোন কালের?

ক) নিত্যবৃত্ত বর্তমান                      খ) সাধারণ বর্তমান

গ) ঘটমান বর্তমান                        ঘ) পুরাঘটিত বর্তমান

২৩।      ‘সূর্য অস্তমিত হলে যাত্রীদল পথ চলা শুরু করল।’ এখানে ‘সূর্য’—

ক) এক কর্তা                   খ) অসমান কর্তা              গ) শর্তাধীন কর্তা              ঘ) নিরপেক্ষ কর্তা

২৪।      ‘আমার হৃদয়-মন্দিরে আশায় বীজ উপ্ত হলো’—বাক্যটিতে কোন দোষ আছে?

ক) বাগধারার দোষ                       খ) গুরুচণ্ডালী দোষ                       গ) উপমার ভুল প্রয়োগ                  ঘ) বাহুল্য দোষ

২৫।      ‘অহিংসা পরম ধর্ম।’ —এখানে ‘ধর্ম’ কোন অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে?

ক) স্বভাব                        খ) সুনীতি

গ) উৎকর্ষ                       ঘ) সৎকাজ

২৬।      শিক্ষক বললেন, ‘তোমরা কি ছুটি চাও?’— পরোক্ষ উক্তিতে হবে—

ক) শিক্ষক বললেন আমরা ছুটি চাই কি না                   খ) আমরা শিক্ষকের কাছে ছুটি চাইলাম                                  গ) আমাদের ছুটি দরকার আছে                      ঘ) আমরা ছুটি চাই কি না, শিক্ষক তা জিজ্ঞেস করলেন

২৭।      ‘তেহাই’ বলতে বোঝায়—

ক) চার ভাগের এক ভাগ                                                    খ) তিন ভাগের এক ভাগ                                        গ) দুই ভাগের এক ভাগ

ঘ) আট ভাগের এক ভাগ

২৮।      ‘দফতর’ কোন ভাষা থেকে আসা শব্দ?

ক) ফারসি           খ) ফরাসি

গ) আরবি            ঘ) পর্তুগিজ

২৯।      ‘অম্বু’ শব্দের সমার্থক শব্দ কোনটি?

ক) পানি                         খ) আকাশ

গ) বাতাস                       ঘ) পর্বত

৩০।      যে বর্ণমালায় বাংলা ভাষা লিখিত, তাকে বলা হয়—

ক) মৌলিক লিপি              খ) অস্ট্রিক লিপি               গ) ব্রাহ্মী লিপি                  ঘ) বঙ্গ লিপি

বহু নির্বাচনী প্রশ্নের উত্তর   ১. খ ২. ঘ ৩. খ ৪. গ ৫. ক ৬. গ ৭. খ ৮. ক ৯. গ ১০. গ ১১. ক ১২. ঘ ১৩. ঘ ১৪. গ ১৫. খ ১৬. ঘ ১৭. ঘ ১৮. খ ১৯. ক ২০. খ ২১. ঘ ২২. খ ২৩. ঘ ২৪. গ ২৫. ঘ ২৬. ঘ ২৭. খ ২৮. ক ২৯ ক ৩০. ঘ।

ssc suggestion 2020 ১ থেকে ৫ নম্বর প্রশ্নের নমুনা উত্তর

১। যেকোনো একটি বিষয়ে অনুচ্ছেদ- ১০

(ক) গ্রাম্য মেলা

মেলা আবহমান গ্রামবাংলার অন্যতম সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য। বাঙালিজীবনের সঙ্গে মেলার যোগ দীর্ঘকালের। গ্রামীণ মানুষের জীবনে মেলা এক অফুরন্ত আনন্দের উৎস। চৈত্রসংক্রান্তি মেলা, বৈশাখী মেলা, পৌষমেলা, মহররমের মেলা, বইমেলা, বৃক্ষমেলা ইত্যাদি উপলক্ষে বাংলাদেশে মেলা বসে। সারা বছরই দেশের কোথাও না কোথাও মেলা হতে দেখা যায়। একেক জায়গায় একেকটা উপলক্ষে মেলার আয়োজন হয়।

কোথাও হিন্দু সম্প্রদায়ের রথযাত্রা, দোলযাত্রা, পুণ্যস্নান, দুর্গাপূজা ইত্যাদি উপলক্ষে এবং মুসলমানদের মহররম উপলক্ষে বসে মেলা। সাধারণত গ্রামবাংলার মেলা বসে নদীতীরে, বিশাল বটের ছায়ায় অথবা উন্মুক্ত প্রান্তরে। যে উপলক্ষেই মেলা বসুক না কেন, মেলায় সাধারণত উৎসব উৎসব একটা আমেজ থাকে।

এক থেকে সাত, আট, দশ দিন কিংবা মাসব্যাপীও মেলা চলতে দেখা যায়। মেলার উৎসবের আমেজ ছড়িয়ে যায় স্থানীয় অঞ্চলের লোকজনের মধ্যে। যে উপলক্ষেই মেলার আয়োজন হোক না কেন, হরেক রকম পণ্যের পসার থাকে মেলায়। ঘর-গেরস্তালির নিত্যব্যবহার্য সামগ্রী, সাজসজ্জার উপকরণ, শিশু-কিশোরদের আনন্দ-ক্রীড়ার উপকরণ, রসনা লাভের লোভনীয় খাবারের সমারোহ থাকে মেলায়।

মেলায় গ্রামীণ মানুষদের নতুন আত্মপ্রকাশ ঘটে। এই আত্মপ্রকাশের মধ্যে একটা সর্বজনীন রূপ আছে। মেলা যে মিলনক্ষেত্র, তাই ধর্ম-বর্ণ-সম্প্রদায়-নির্বিশেষে মানুষের আনাগোনা। মেলায় আসা দর্শকদের মনোরঞ্জনের নানা ব্যবস্থা থাকে। নাগরদোলা, লাঠিখেলা, কুস্তি, পুতুলনাচ, যাত্রা, কবিগান, বাউল-ফকিরের গান, ম্যাজিক, বায়োস্কোপ, সার্কাস ইত্যাদির মাধ্যমে মানুষ আনন্দ-ফুর্তিতে মেতে ওঠে।

মেলায় পণ্যের কারিগরের সঙ্গে ক্রেতার সরাসরি সংযোগ তৈরি হয়। ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা লোকসংস্কৃতির বিভিন্ন উপাদান পূর্ণতা পায়। স্বল্পপুঁজির অবহেলিত পেশাজীবী, যেমন—কামার, কুমার, তাঁতি—তাদের তৈরি পণ্য সহজে বেচা-বিক্রি করতে পারে। এটা গ্রামীণ মেলার একটা তাৎপর্যপূর্ণ অর্থনৈতিক দিক। গ্রামীণ মেলা গ্রামবাংলার চিরায়ত ঐতিহ্য। আবহমান বাংলার লোকসংস্কৃতির অংশ।

মেলার মাধ্যমে এক গাঁয়ের মানুষের সঙ্গে অন্য গাঁয়ের মানুষের পরিচয় ঘটে, পরিচিতজনদের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়, ভাবের আদান-প্রদান হয়। এতে সম্প্রীতি আরো সুদৃঢ় হয়। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মেলার চিত্র-চরিত্রের পরিবর্তন এসেছে। তার পরও গ্রাম্য মেলা আবহমান বাংলার লোকসংস্কৃতির অংশ।

READ MORE–  এসএসসি বাংলা ২য় সাজেশন ২০২০

২। যেকোনো একটি বিষয়ে পত্র লেখো :  ১০

অথবা, খ)

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

বরাবর

প্রধান শিক্ষক

ক উচ্চ বিদ্যালয়

ঢাকা-১২০৬

বিষয় : শিক্ষা সফরে যাওয়ার অনুমতি প্রদানের জন্য আবেদন।

জনাব,

সবিনয় নিবেদন এই যে, আমরা আপনার বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। প্রতিবছর প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার পর আমাদের বিদ্যালয় থেকে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের কোনো ঐতিহাসিক স্থানে শিক্ষা সফরে নিয়ে যাওয়া হয়। এ বছর এখন পর্যন্ত আমাদের শিক্ষা সফরে নিয়ে যাওয়ার কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি। আমরা এ বছর পাঠসহায়ক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে শিক্ষা সফরে নওগাঁ জেলার পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহারে যেতে ইচ্ছুক। আমরা পাঠ্য বই থেকে জেনেছি, ২৭ একর জমির ওপর বিহারটির বিশাল দালান। এটি উত্তর-দক্ষিণে ৯২২ ফুট আর পূর্ব-পশ্চিমে ৯১৯ ফুট বিস্তৃত। রাজা ধর্মপাল প্রায় ১২০০ বছর আছে এটি নির্মাণ করান। বিহারটির ভেতরে ৮০০ মানুষের থাকার ব্যবস্থা ছিল। সবচেয়ে বড় কথা, বিহারটি ছিল উচ্চশিক্ষার প্রাণকেন্দ্র। এই প্রাচীন শিক্ষার কেন্দ্রটি বাস্তবে প্রত্যক্ষ করে আমাদের জানার পরিধি আরো বাড়াতে চাই।

অতএব, মহোদয়ের কাছে বিনীত প্রার্থনা, আমাদের শিক্ষা সফরে যাওয়ার অনুমতি প্রদান ও প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ করলে বিশেষভাবে বাধিত হব।

বিনীত—

বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীদের পক্ষে

নওরিন

রোল নম্বর-১

৩। (ক) সারাংশ লেখো :  ১০

সারাংশ : শিক্ষা মানুষের মানসিক উৎকর্ষ ঘটায়। তবে সেই শিক্ষা যদি আনন্দহীন হয়, তাতে মনের বিকাশ বাধাপ্রাপ্ত হয়। প্রকৃত শিক্ষার জন্য পাঠ্য বই ছাড়াও পাঠ-সহায়ক আনন্দকর শিক্ষা-উপকরণ দরকার। এতে শিক্ষার্থীর জ্ঞান, চিন্তাশক্তি, ধারণশক্তি যেমন বৃদ্ধি পায়, তেমনি আনন্দও লাভ করা যায়।

দেখুন- Ssc English Preparation 2020

৪। যেকোনো একটি ভাবসম্প্রসারণ করো :   ১০

(ক) চরিত্র মানুষের অমূল্য সম্পদ

মূল ভাব : চারিত্রিক গুণই মানুষকে সত্যিকারের মানুষ করে তোলে।

সম্প্রসারিত ভাব : চরিত্র মানবজীবনের শ্রেষ্ঠ সম্পদ। মানবজীবনের উন্নতি, সফলতা ও সর্বাঙ্গীণ বিকাশের জন্য চরিত্রের গুরুত্ব অপরিসীম। চরিত্রবান ব্যক্তি সত্য ও ন্যায়ের অনুসারী। এ ধরনের মানুষ জাগতিক লোভ-লালসা ও মিথ্যা প্রলোভনে কখনো প্রলুব্ধ হয় না। তারা অন্যায়ের সঙ্গে কখনো আপস করে না। চরিত্রবান মানুষ তার মনুষ্যত্ব ও বিবেক দিয়ে দেশ ও জাতির কল্যাণে কাজ করে।

জগৎ-সংসারের সব জ্ঞানী-গুণী ব্যক্তি তাঁদের মহৎ চরিত্রের জন্যই স্মরণীয় ও বরণীয় হয়ে আছেন। তাঁদের উত্তম চরিত্র সবার আদর্শ এবং তাঁরা সবার শ্রদ্ধার পাত্র। অন্যদিকে দুশ্চরিত্র ব্যক্তি সমাজ, দেশ ও জাতির জন্য অকল্যাণকর। চরিত্রবান মানুষের সংস্পর্শে এলে যেকোনো মানুষ যেমন সত্য ও সুন্দর পথের সন্ধান পায়, তেমনি চরিত্রহীন ব্যক্তি তার লোভ-লালসা ও হিংসা-দ্বেষ দিয়ে সমাজ ও দেশকে কলুষিত করে। এ ধরনের ব্যক্তিরা প্রয়োজনে যেকোনো অন্যায় কাজ করতেও দ্বিধা বোধ করে না বলে তাদের সত্যিকারের মর্যাদা থাকে না।

মন্তব্য : চরিত্রবান ব্যক্তি যেমন নিজের জীবনকে সুন্দর ও আলোকিত করে, তেমনি জাতীয় জীবনকেও উজ্জ্বল করে তোলে। তাই ব্যক্তি ও জাতীয় জীবনে সাফল্য লাভের জন্য প্রত্যেককে উত্তম চরিত্র গঠনের জন্য সাধনা করে যেতে হবে।

৫। যেকোনো একটি বিষয়ে প্রতিবেদন রচনা করো :  ১০

ক)

২ জানুয়ারি, ২০২০

বরাবর

প্রধান শিক্ষক

‘ক’ উচ্চ বিদ্যালয়

ঢাকা-১২০৬

সূত্র নং-১১/বি.মু.স.পা.ব.বি/২০

বিষয় : বিনা মূল্যে সরকারি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ সম্পর্কিত প্রতিবেদন।

জনাব,

আপনার দ্বারা আদিষ্ট হয়ে গত ১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের সূত্র নং ১১/বি.মু.স.পা.ব.বি/২০ অনুযায়ী বিদ্যালয়ে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় বিনা মূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদন উপস্থাপন করছি।

বিনা মূল্যে সরকারি পাঠ্যপুস্তক

বিতরণ : আনন্দে আপ্লুত শিক্ষার্থীরা

গত ১ জানুয়ারি, ২০২০ বুধবার, ‘ক’ উচ্চ বিদ্যালয়ে বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হলো বিনা মূল্যে সরকার প্রদত্ত পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কর্মসূচি ২০২০।

পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কার্যক্রম উপলক্ষে বিদ্যালয়ের প্রথম থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা সারিবদ্ধ ও সুশৃঙ্খলভাবে সমবেত হয় সমাবেশ প্রাঙ্গণে। পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কার্যক্রমের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন বিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারিক ও শ্রেণিশিক্ষকরা। এ বিতরণ কার্যক্রমে সভাপতিত্ব করেন প্রধান শিক্ষক মহোদয়।

সকাল ৮.০০ ঘটিকায় প্রাতঃসমাবেশ অনুষ্ঠিত হওয়ার পর প্রতি শ্রেণি থেকে মেধাতালিকায় প্রথম তিনজন শিক্ষার্থীর হাতে পাঠ্যপুস্তক তুলে দেন প্রধান শিক্ষক মহোদয়। লাল-সবুজ ফিতায় বাঁধা এক সেট নতুন বই পেয়ে শিক্ষার্থীরা আনন্দে উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়ে। শিশু-কিশোর শিক্ষার্থীদের মধ্যে বই বিতরণকালে অনাবিল আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে উপস্থিত অভিভাবক ও শিক্ষকদের মধ্যে।

বই বিতরণ কার্যক্রম শেষে প্রধান শিক্ষক মহোদয় উপস্থিত অভিভাবক ও শিক্ষকদের উদ্দেশে যা বলেন তা হলো—

একাদশবারের মতো কেন্দ্রীয়ভাবে জাতীয় পাঠ্য বই উৎসবের আয়োজন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা অধিদপ্তর। পৃথিবীর আর কোনো দেশে বিনা মূল্যে এত বিপুলসংখ্যক পাঠ্যপুস্তক দেওয়া হয় না। আলোকিত মানুষ ও সুশিক্ষিত দেশ গড়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক এই পাঠ্য বই বিতরণ কার্যক্রম নিঃসন্দেহে প্রশংসাযোগ্য।

‘ক’ বিদ্যালয়ে আয়োজিত বিনা মূল্যে সরকারি পাঠ্যপুস্তক বিতরণ কার্যক্রম যে সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন হয়েছিল, এ কথা নির্দ্বিধায় বলা যায়।

বিনীত

তানিয়া পারভীন

সাহিত্য সম্পাদক

প্রতিবেদকের নাম :  তানিয়া পারভীন

প্রতিবেদনের শিরোনাম : বিনা মূল্যে সরকারি পাঠ্য বই বিতরণ

প্রতিবেদন তৈরির স্থান        : ‘ক’ উচ্চ বিদ্যালয়, ঢাকা-১২০৬

প্রতিবেদন তৈরির তারিখ : ১ জানুয়ারি, ২০২০

এসএসসি বাংলা ২য় সাজেশন ২০২০ । ssc suggestion 2020 bangla 2nd paper পোস্টটি পরে উপকৃত হলে এসএসসি প্রস্তুতি যারা নিচ্ছেন তাদের সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিবেন এবং Factarticle এর সঙ্গেই থাকবেন।

Credit– kalerkantho

সৌজন্যেঃ Factarticle.com

Comments

Tags
Back to top button
Close
Close