facebook income
Freelancing

কিভাবে ফেসবুক থেকে আয় করবেন?দেখে নিন!

কিভাবে ফেসবুক থেকে আয় করবেন?দেখে নিন!

How to earn from Facebook? look now!

facebook earnআজকের আলোচনায় থাকছে, কিভাবে ফেসবুক থেকে আয় করবেন? তাহলে চলুন শুরু করা যাক মূল আলোচনায়।

ফেসবুকে প্রায় আমরা সবাই আসক্ত হয়ে পড়ছি এবং অনেক সময় নষ্ট করে থাকি। অনেকেই বলছেন কিংবা বিশ্বাস করছেন, যে ফেসবুক ফেসবুক মানেই বর্তমান যুগে সব কুকর্মের স্থান।

ফেসবুক মানেই হলো তরুণ ছেলেমেয়েদের বিপথে যাওয়ার জায়গা। কথাগুলো কিন্তু মিথ্যা নয়। আসলে এ ঘটনাগুলো এখন ফেসবুকের মাধ্যমেই ঘটছে।

সব কিছুরই ভালো এবং খারাপ দুটো দিকই রয়েছে। সচেতনতার অভাবে আমরা হয়তো খারাপ কাজেই বেশির ভাগ সময় ফেসবুককে ব্যবহার করছি। কিন্তু যারা অনলাইন প্রফেশনাল,তারা ফেসবুককে বর্তমান যুগের সবচেয়ে বড় আশীর্বাদ মনে করছে।

বিশ্বের সব জায়গার এত মানুষ এখন ফেসবুকে রয়েছে। পৃথিবী এখন সত্যিকারের হাতের মুঠোয় চলে এসেছে ফেসবুকের কল্যাণে। ফেসবুকের কল্যাণে এখন বাংলাদেশে বসে আমেরিকার একজনের বন্ধুত্ব হচ্ছে, আমেরিকার প্রতিটা মুহূর্তের আপডেট জেনে যাচ্ছি।

তাহলে বোঝাই যাচ্ছে, ফেসবুক কত ছোট করে ফেলেছে দুনিয়াটাকে। এই সুবিধাটা কাজে লাগিয়ে কেউ কাজে লাগাচ্ছে। আর কেউ হয়তো আড্ডা দিয়ে সময় নষ্ট করছে।

তাহলে আসুন আমরা সবাই ফেসবুকে আড্ডা দেয়ার পাশাপাশি কিছু ইঙ্কামও করি।

ফেসবুক থেকে আয় করার উপায় ২০১৯

১. ফেসবুক এফ-কমার্স

ফেসবুকে পেজ খুলেই বাংলাদেশে ই-কমার্স ব্যবসা করা যায়। যেটা ইদানীং সবাই ফেসবুকে দেখছেন। আপনার সর্ব প্রথমে করতে হবে যে, একটি ভালো এবং চাহিদা থাকা পণ্য (product) কোনো wholesaler বা কম দামে দেয়া দোকান থেকে কিনতে হবে।

যেমন, সুন্দর সুন্দর কানের দুল, স্টাইলিশ (stylish) শাড়ী, ছেলেদের কাপড় বা যেকোনো প্রোডাক্ট যার মার্কেটে চাহিদা অনেক। যারা এভাবে কাজ করছেন, তাদের মাসিক আয় হচ্ছে ১৫,০০০ টাকা – ৩০,০০০ টাকা পর্যন্ত।

আবার অনেকেরই ভালো ইনভেস্ট থাকার কারণে আরও বেশি ইনকাম হচ্ছে। সেটা ১ লাখ থেকে ২ লাখও হতে পারে।facebook earn প্রোডাক্টঃ শাড়ি,মেয়েদের ড্রেস, গিফট আইটেম ইত্যাদি।

অভিজ্ঞতাঃ টার্গেট মার্কেটিং।

২. টি-শার্ট অ্যাফিলিয়েশন

বর্তমানে বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় ইনকাম সোর্স হচ্ছে টি-শার্ট অ্যাফিলিয়েশন। এ অ্যাফিলিয়েশনের জন্য শুধুমাত্র ফেসবুককেই ব্যবহার করা হয়। এভাবে মাসে ১৫,০০০ টাকা থেকে ১ লাখ টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

প্রোডাক্ট: টি-শার্ট,শার্ট,মগ, হুডি ইত্যাদি

অভিজ্ঞতাঃ নিশ সিলেক্ট, অডিয়েন্স টার্গেট, মার্কেটিং ইত্যাদি

৩. হোস্টিং অ্যাফিলিয়েশন

হোস্টিং অ্যাফিলিয়েশনের জন্য শুধুমাত্র ফেসবুক মার্কেটিং করে ইনকাম করা যায়। ইনকাম কয়টা সেল করেছেন, সেই অনুযায়ী বাড়তে থাকে। ইনকাম মাসে ৫০০০ টাকা – ৮০,০০০ টাকা হতে পারে।

প্রোডাক্ট: বিভিন্ন কোম্পানির হোস্টিং

অভিজ্ঞতাঃ কনটেন্ট ডেভেলপ, সম্ভাব্য কাস্টমার খুঁজে বের করা, মার্কেটিং ইত্যাদি

৪. লোকাল ব্যবসা

লোকাল যে কোন ব্যবসার প্রফিট বৃদ্ধির জন্য এখন ফেসবুক মার্কেটিংকে সবাই ব্যবহার করছে। রেস্টুরেন্ট ব্যবসা, ফ্যাশন হাউস থেকে শুরু করে আরও অন্যান্য ব্যবসাতেও ফেসবুকে মার্কেটিং করেই ইনকাম বৃদ্ধি করা যায়।

প্রোডাক্ট: সার্ভিস, ট্রেনিং, প্রোডাক্ট ইত্যাদি

অভিজ্ঞতাঃ ইনভেস্ট, প্রোডাক্ট বাছাই, দক্ষ ব্যক্তি, মার্কেটিং ইত্যাদি

৫. লোকাল চাকরি

যে কোনো ব্যবসাতে যেহেতু ফেসবুক মার্কেটিং এখন  বড় একটি ফ্যাক্ট। সুতরাং, প্রতিটা প্রতিষ্ঠানে এ কাজটি করার জন্য ফেসবুক মার্কেটিংয়ের এক্সপার্ট লোকজনের চাকরির সুযোগ তৈরি হয়েছে। বাংলাদেশের বাজারে এখন পর্যন্ত ১৫ হাজার টাকা থেকে ৬০ হাজার টাকা বেতনে এ সেক্টরে চাকরিতে নিচ্ছে।

প্রোডাক্ট: সার্ভিস, ট্রেনিং, প্রোডাক্ট ইত্যাদি

অভিজ্ঞতাঃ রিয়েল কাজের অভিজ্ঞতা, ব্যবসাতে প্রফিট বৃদ্ধি করা ইত্যাদি

৬. অ্যাডসেন্স

একটা সাইটে যত বেশি ট্রাফিক নিয়ে আসতে পারবেন, তত সাইটের অ্যাডভার্টাইজ থেকে ইনকাম বৃদ্ধি পাবে। ইনকাম ৫ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ হতে পারে।

প্রোডাক্ট: একটা ব্লগ সাইট

অভিজ্ঞতাঃ নিশ সিলেকশন, সাইট প্রস্তুত, কনটেন্ট ডেভেলপ, মার্কেটিং ইত্যাদি

৭. ফাইভারের গিগ সেল

facebook earnফাইভারে গিগের যত বেশি প্রমোশন চালাবেন, ততই গিগ সেল বৃদ্ধি পাবে। কিন্তু ফেসবুক প্রমোশন চালাতেও সঠিক জ্ঞান থাকতে হবে। সঠিক জ্ঞান ছাড়া গিগ প্রমোশন চালালে ফাইভারে ইনকাম বাড়বে, উল্টো ফাইভার অ্যাকাউন্টটাই নষ্ট হয়ে যাবে।

প্রোডাক্ট: ফাইভার গিগ

অভিজ্ঞতাঃ অডিয়েন্স টার্গেট করতে পারা, কনটেন্ট ডেভেলপ করতে পারা, মার্কেটিং ইত্যাদি

৮. মার্কেটপ্লেসে কাজ

ফেসবুক যেহেতু মার্কেটিংয়ের অনেক বড় প্ল্যাটফর্ম, সেহেতু মার্কেটপ্লেসে এখন প্রচুর কাজ পাওয়া যাচ্ছে এ সম্পর্কিত। মাসে ৫ হাজার থেকে ৫০ হাজার টাকা ইনকাম করতে পারেন।

প্রোডাক্ট: বায়ার রিকোয়েরমেন্ট অনুযায়ী সার্ভিস

অভিজ্ঞতাঃ কাজের পূর্বঅভিজ্ঞতার প্রমাণ, বায়ার কনভেন্স করতে পারা এবং রিপোর্টিং ইত্যাদি

পোস্টটি সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিবেন এবং Factarticle.com এর সংগেই থাকবেন।

BY:Factarticle.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *