cheating on Facebook
Cyber Crime

ফেসবুকে প্রতারকের হাত থেকে যেভাবে সাবধান হবেন!

ফেসবুকে প্রতারকের হাত থেকে যেভাবে সাবধান হবেন!

How to beware of cheating on Facebook!

cheating on Facebook

আমরা এখনকার সময়ে ফেসবুক এ অনেক ধরনের প্রতারকের কবলে পরছি। তাই ফেসবুকে প্রতারকের হাত থেকে যেভাবে সাবধান হবেন!

ফেসবুকে যেভাবে সাবধান হবেন

ফেসবুকে প্রতারকের হাত থেকে রক্ষা পেতে ব্যবহারকারীকে সচেতন হতে হবে। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে,সাইবার দুর্বৃত্তদের এ ধরনের স্ক্যাম পুরোপুরি সরিয়ে ফেলা সম্ভব হয় না। ব্যবহারকারীদের সচেতনতা ও প্রচেষ্টা থাকা দরকার।

এ ধরনের সন্দেহজনক লিংকে ক্লিক করা বা ভিডিও দেখার ক্ষেত্রে সচেতন থাকতে হবে। গবেষকেরা বলছেন, ব্যবহারকারীরা এখন মোবাইল ফোনকে বেশি গুরুত্ব দেন বলে দুর্বৃত্তরা তাঁদের লক্ষ্য করছে বেশি। সামাজিক যোগাযোগের সাইটে আসা বিভিন্ন লিংক।

বিশেষ করে মেসেঞ্জারের লিংক বা মোবাইল এসএমএসে এ ধরনের লিংক আসে বেশি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানুষ এখন এসএমএস ও সামাজিক যোগাযোগের সাইটগুলোয় পোস্টগুলোকে বিশ্বাসযোগ্য উৎস হিসেবে মনে করছে।

সাইবার দুর্বৃত্তদের প্রতারণার হাত থেকে রক্ষা পেতে এ ধরনের লিংকে ক্লিক করার আগে বা নির্দেশনা মানার আগে একটু দেখে নেওয়া প্রয়োজন।

মনে রাখতে হবে, ফেসবুক বা অন্য কোনো সেবা থেকে লগইন লিংক এসএমএস বা অন্য কোনো উৎসে পাঠানো হবে না। অপরিচিত কেউ কোনো লিংক পাঠালে তাতে ক্লিক করবেন না।

cheating on Facebook

ফেসবুকে যেভাবে সাবধান হবেন

পুলিশ সদর দপ্তর সূত্র জানিয়েছে, ফেসবুকের অপরাধ নিয়ে তদন্তের সক্ষমতা বাড়ছে। তবে ফেসবুকের সঙ্গে সরাসরি কাজ করে এমন একক কোনো সংস্থা নেই পুলিশ প্রশাসনে। মহাপরিদর্শক (এআইজি, মিডিয়া)

সোহেল রানা বলেন,ঢাকা মহানগর পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) সাইবার ইউনিট, পুলিশ সদর দপ্তরের এলআইসি সেল, পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই), বিশেষ শাখা (এসবি) ও র‌্যাব সাইবার ক্রাইম নিয়ে আলাদাভাবে কাজ করছে।

গত বছর ‘সাইবার ক্রাইম অ্যাওয়ারনেস ফাউন্ডেশনের এক গবেষণায় উঠে আসে।দেশে সাইবার অপরাধের শিকার ৫১.১৩ শতাংশ নারী এবং ৪৮.৮৭ শতাংশ পুরুষ।

গবেষণায় দেখা যায়, বাংলাদেশে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে ভুয়া আইডির মাধ্যমে হয়রানির শিকার হন ১৪.২৯ শতাংশ নারী এবং ১২.৭৮ শতাংশ পুরুষ।

ছবি বিকৃতির শিকার হন ১২.৩ শতাংশ নারী এবং ৩.৭৬ শতাংশ পুরুষ। অনলাইনে হুমকির শিকার ৯.৭ শতাংশ নারী এবং পুরুষ ৩.৭৬ শতাংশ। গবেষণায় উঠে আসে, ভুক্তভোগী অনেকেই আত্মমর্যাদা ধরে রাখতে ঘটনা চেপে যান।

ফেসবুকে  সাবধান 

যাঁরা অভিযোগ করেন তাঁদের মধ্যে হাতে গোনা ব্যক্তি সুফল পেয়েছেন। অভিযোগ করার কারণে অনেকে হয়রানির মুখেও পড়েছেন।

তথ্য ও যোগাযোগ খাতে গবেষণাপ্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের (বিডিওএসএন) এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশে ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৫৬ লাখ। এর মধ্যে ১১ লাখই ভুয়া। ২০১৭ সালের একটি জরিপ থেকে জানা যায়, সক্রিয় ফেসবুক ব্যবহারকারীর তালিকায় ঢাকা বিশ্বে দ্বিতীয়।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তারকাদের ফেসবুক আইডি ‘ভেরিফায়েড’ হলে তাতে ‘ব্যাজ’ দেওয়া থাকে। ভুয়া আইডিতে ব্যাজ থাকে না, থাকে বহুল ব্যবহৃত পুরনো ছবি, অন্য আইডি বা পেজের ছবি।

cheating on Facebook

তারকাদের ওয়ালে হালনাগাদ তথ্য না থাকলেও সেটি ভুয়া আইডি হওয়ার আশঙ্কা আছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আইডির ‘অ্যাবাউট’ অপশনে গিয়ে ই-মেইল বা অন্য যোগাযোগ, ঠিকানা, ফ্যামিলি ফ্রেন্ড এবং শিক্ষাগত যোগ্যাতার সূত্র থেকেও আইডি সঠিক কি না তা সহজে বোঝা যায়। ভুয়া আইডিতে এসব থাকে না।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভুয়া আইডির ব্যাপারে ফেসবুকেই রিপোর্ট করারও সুযোগ আছে।ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সরকারের যোগাযোগ বেড়েছে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন অনুযায়ী কাজ করতে কয়েকটি তদন্ত ইউনিট গঠন করা হয়েছে।

ফেসবুকে যেভাবে সাবধান হবেন

ভুয়া চাকরি

ফেসবুকে অনেক বড় প্রতিষ্ঠানের চাকরির বিজ্ঞাপন দেখে রোমাঞ্চিত হবেন না। চাকরিতে আবেদন করার আগে এবং কোনো সাক্ষাৎকারে যাওয়ার আগে তা প্রতারণা কি না, এ বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে নিন।

অনলাইনে চ্যাটের মাধ্যমে সাক্ষাৎকার ও নিয়োগের কথা বললে প্রতিষ্ঠানের অস্তিত্ব সম্পর্কে জেনে নিন। অনলাইনে নিয়োগের ক্ষেত্রে লেনদেনে সতর্ক থাকুন।

বাড়ি ভাড়া

অনেকেই ফেসবুকে সুন্দর বাড়ির ছবি দেখে ভাড়া নিতে চান। কিন্তু বাড়ি ভাড়া নেওয়ার জন্য বাড়ির প্রকৃত অবস্থা জানা প্রয়োজন। ফেসবুকে অনেক সময় প্রতারকেরা ভিন্ন বাড়ির ছবি দিয়ে বাড়ি কিনতে উৎসাহী করে তোলে। এ ক্ষেত্রে আগাম অর্থ পরিশোধ করলে ধোঁকা খেতে হতে পারে।

ফেসবুক রোমান্স

ফেসবুকে প্রেম থেকে সাবধান

অনেকেই অনলাইনে সঙ্গীর খোঁজ করেন। সুযোগটা কাজে লাগাতে ওত পেতে থাকে সাইবার দুর্বৃত্তরা। ডিজিটাল প্রতারণার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি অর্থ লোকসান হয়েছে অনলাইন রোমান্সের ফাঁদে পা দিয়েই।

২০১৮ সালে ১৪ কোটি ৩০ লাখ ডলার হাতিয়ে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

ফেসবুকে বিভিন্ন সুন্দরী মেয়ে বা সুন্দর ছেলের পোস্ট দিয়ে তার সঙ্গে যোগাযোগে আগ্রহী করে তোলে দুর্বৃত্তরা। অনেকে ক্ষেত্রে দাতব্য কাজ, সঙ্গীহীন পরিচয় দিয়ে অর্থ চাইতে পারে। এমন প্রলোভনে ভুলে গেলেই সর্বনাশ।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, এ ধরনের প্রতারণা ঠেকাতে তাদের নির্দিষ্ট টিম আছে। ফেসবুকের অভিজ্ঞতা উন্নত করতে এ খাত ক্রমেই উন্নতি করে যাচ্ছে তারা।

প্রতারণা থেকে ফেসবুকে যেভাবে সাবধান হবেন

বন্ধু বা ঘনিষ্ঠ কারও পরিচয়ে টাকা চাইলে আগে তার সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করে বা অন্য কোনো উপায়ে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে নিন। তাঁর অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে কি না, জেনে নিন।

এ ধরনের প্রতারণা ঠেকাতে ফেসবুকে ‘টু ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন’ যোগ করা যেতে পারে, যা অ্যাকাউন্ট হাতিয়ে নেওয়ার বিষয়টি কঠিন করে তুলবে। ফেসবুকে এ সুবিধা থাকলেও তা ডিফল্ট আকারে নেই। ম্যানুয়ালি ঠিক করে নিতে হবে।

cheating on Facebook

যাঁদের কোনো অ্যাকাউন্ট নিয়ে সন্দেহ হবে, তাঁরা অবশ্যই ফেসবুককে অভিযোগ জানাবেন। কখনো নিশ্চিত না হয়ে অর্থ পাঠাবেন না। নিশ্চিত হয়ে পাঠান।

ফেসবুকের কোনো পোস্ট বা বার্তা কেউ যদি কৌশলে ব্যক্তিগত তথ্য সংগ্রহ করার চেষ্টা করে বা অর্থ চায়। তাহলে CLICK এই লিংকে অভিযোগ করা যাবে।

যাঁদের অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে তাঁরা যাবেন এই লিংকে- CLICK

যদি কেউ ফেসবুক অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা পরীক্ষা করতে চান। তাহলে এই লিঙ্ক কিল্ক করুন- CLICK

যদি ফেসবুকের সেটিংস পরীক্ষা করতে চান। তাহলে তারা এই লিঙ্ক এ ক্লিক করুন- CLICK

যদি পাসওয়ার্ড বদলাতে চান তাহলে তারা যেতে পারেন এই লিঙ্ক এ- CLICK

পোস্টটি সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিবেন এবং সবাইকে সচেতন হওয়ার তাগিদ দিবেন এবং Factarticle.com এর সঙ্গেই থাকবেন।

BY:Factarticle.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *