Uncategorized

পাকিস্তান-ভারত যুদ্ধ হলে বিশ্বকে ভুগতে হবে বললেনঃ ইমরান খান

Imran Khan says the world will suffer if Pakistan-India war

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, তিনি যুদ্ধের বিরুদ্ধে। তবে শেষ পর্যন্ত দুই পরমাণু শক্তিধর দেশ পাকিস্তান ও ভারত পরস্পরের বিরুদ্ধে যুদ্ধে লিপ্ত হলে পুরো বিশ্বকেই এর ফল ভোগ করতে হবে।

শুক্রবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৪তম অধিবেশনে দেয়া বক্তব্যে তিনি এমন মন্তব্য করেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে পাকিস্তানভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ডন, ভারতের সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি।

এনডিটিভি জানায়, এদিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ভাষণের কিছুক্ষণ পরই ভাষণ দেন ইমরান। তিনি বলেন, এটা (কাশ্মীর সংকট সামাধান) জাতিসংঘের জন্য একটি পরীক্ষা।

৫ আগস্ট ভারত সরকার জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে রাজ্যটিকে কেন্দ্রশাসিত দুটি আলাদা অঞ্চলে ভাগ করার ঘোষণা দেয়।

বিশেষ মর্যাদা বাতিলের ঘোষণার একদিন আগেই পুরো রাজ্য নিরাপত্তার চাদরে মুড়িয়ে ফেলে মোদি সরকার। উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়া আটকাতে কারফিউ জারিসহ বেশির ভাগ কাশ্মীরি নেতাকে গৃহবন্দি বা কারাবন্দি করে রাখা হয়েছে।

কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর প্রতিবেশী পাকিস্তান এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছে। তারা ভারতের সঙ্গে সব ধরনের বাণিজ্য সম্পর্কও ছিন্ন করেছে।

জাতিসংঘে ইমরান বলেন, যদি যুদ্ধ শুরু হয়েই যায় তবে যে কোনো কিছুই ঘটতে পারে। কিন্তু ভাবুন, একটি দেশকে যখন তার চেয়ে সাত গুণ বড় প্রতিবেশীর সঙ্গে যুদ্ধ নিয়ে বাছতে হয় আত্মসমর্পণ কর অথবা মৃত্যুর আগ পর্যন্ত নিজের স্বাধীনতার জন্য লড়াই কর।

আমরা কী করব? আমি নিজেকেও একই প্রশ্ন করেছি। আমার বিশ্বাস, এক ঈশ্বর ছাড়া আর কেউ নেই এবং আমরা লড়াই করব। সেক্ষেত্রে যখন একটি পরমাণু অস্ত্র শক্তিধর দেশ শেষ পর্যন্ত লড়াই করবে, তখন যুদ্ধের ফলাফল সীমান্ত ছাড়িয়ে পুরো বিশ্বকেই ভুগতে হবে।

পাকিস্তানে কোনো জঙ্গি সংগঠনের অস্তিত্ব নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

১৫ মিনিটের বেশি সময় ধরে ভাষণ দেন ইমরান খান। তার বক্তব্যের বেশির ভাগ সময়জুড়ে ছিল অধিকৃত কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন বাতিলসহ অঞ্চলটিতে ভারতের নীতির কঠোর সমালোচনা।

By:Factarticle.com

Comments

Tags
Back to top button
Close
Close