cigarrate
Public Sector

নিউ-ইয়র্ক ও ভারতে নিষিদ্ধ হলো ই-সিগারেট

E-cigarettes banned in New York and India

বিক্রির জন্য ইলেকট্রনিক সিগারেটগুলোকে কম ক্ষতিকর বলে প্রচার করা হচ্ছে, যা মোটেও সত্য নয়।’প্,, ৩ বছর আগে, ২০১৫ সালে ক্যালিফোর্নিয়া হেলথ ডিপার্টমেন্ট অব পাবলিক হেলথে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বলেছিলেন, ই-সিগারেট মানুষের জন্য হুমকিস্বরূপ এবং এটিকে আইনের আওতায় আনা উচিত।

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যেও মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ই-সিগারেট নিষিদ্ধের ঘোষণা দেয়া হয়েছে

ভারতে ইলেক্ট্রনিক সিগারেট বা ই-সিগারেট নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এ ঘোষণা দেন দেশটির কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। তিনি বলেন, তামাকের আসক্তি মোকাবিলার হাতিয়ার হিসাবে এটিকে ব্যবহার করা হলেও এই ই-সিগারেট বা বৈদ্যুতিক সিগারেট এবং এই ধরণের অন্যান্য পণ্যগুলি একটি বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে এ দেশে। এমনকী শিশুরাও না বুঝে এর প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে। এই নিষিদ্ধকরণ এখন থেকেই কার্যকর করা হল। এনডিটিভি এ খবর জানায়।

ই-সিগারেট অধ্যাদেশ, ২০১৯-এর নিষিদ্ধকরণ সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশাবলী অনুসরণ করে মন্ত্রিগোষ্ঠী পরিকল্পনা করে।

অধ্যাদেশের খসড়ায় স্বাস্থ্য মন্ত্রক প্রস্তাব দিয়েছে, এই নিষিদ্ধকরণ না মানলে সেই ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাদণ্ডের পাশাপাশি পাঁচ হাজার টাকা জরিমানাও দিতে হবে। তবে প্রথমবার ভুল করে কেউ বা কারা এই আইন লঙ্ঘন করলে তাদের কারাদণ্ড না হলেও ১ লক্ষ টাকা জরিমানা হবে।

উল্লেখ্য, নরেন্দ্র মোদি সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে প্রথম ১০০ দিনের এজেন্ডার মূল অগ্রাধিকারগুলির মধ্যে ছিল ই-সিগারেট, হিট-নট-বার্ন স্মোকিং ডিভাইস, ভ্যাপ এবং ই-নিকোটিন স্বাদযুক্ত হুকাগুলির মতো বিকল্প ধূমপানের যন্ত্র নিষিদ্ধ করা।

এদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্যেও মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ই-সিগারেট নিষিদ্ধের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। 

এর প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার এই নিষেধাজ্ঞার পক্ষে ভোট দেয় প্যানেল। মেন্থলসহ সকল ধরণের সুগন্ধি ই-সিগারেট এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বে। আগামী ৭ অক্টোবর থেকে এই ঘোষণা কার্যকর হবে।

BY: Factarticle.com

Comments

Leave a Reply