online money increase
Freelancing

আপনি আপনার সোফায় বসে অর্থ উপার্জন করুন ৯ টা ওয়েবসাইট থেকে, না দেখলে মিস করবেন!

আপনি আপনার সোফায় বসে অর্থ উপার্জন করুন oonline money increase ৯ টা ওয়েবসাইট থেকে, না দেখলে মিস করবেন!

you make money at From the 5 website off Sitting down your couch! dont miss out! 

অনলাইনে আয় করুন সহজ উপায়ে

অনলাইন জগতে “get-rich-quick” কথাটা অনেক বেশিই শোনা যায় কথাটা আসলেই সত্যি! এই অনলাইন জগতে get-rich-quick কথাটা কাউকে ছুঁতে খুব বেশি সময় লাগে না, যদি সে তার অভিজ্ঞতা/জ্ঞান ইত্যাদি সঠিক ভাবে কাজে লাগায় এবং সঠিক সময়ে।

অনলাইনে আয় করার নিশ্চিত উপায়

online passive income

১.মেকানিক্যাল টার্ক/Mechanical Turk

আয় করুন ঘরে বসে

মেকানিকাল তুর্ক আমাজন দ্বারা পরিচালিত।আমাজন(Mechanical Turk on Amazon) এর মেকানিক্যাল টার্ক, প্রাচীনতম এবং সেরা পরিচিত জনসাধারণের বাজারগুলির মধ্যে একটি, এটি এমটিউক নামেও পরিচিত। যে কোনও ব্যক্তি সাইন আপ এবং সাধারণ কাজগুলি সম্পূর্ণ করতে পারে-যেমন দুটি ছবিতে কোন একটি সেতুকে চিত্রিত করে তা বেছে নিতে হবে এবং প্রতিটি টাস্কের জন্য কয়েক সেন্ট উপার্জন করতে পারবেন।

আরও পড়ুন- ডাঁটা এন্ট্রি কি? ডাঁটা এন্ট্রি করে কিভাবে আপনি মাসে ৩০০-৪৫০ ডলার ইনকাম করবেন দেখে নিন-ক্লিক করে দেখে নিন! 

যান্ত্রিক তুর্কের অনলাইন শ্রমিকরা এইচআইটি অথবা “মানব গোয়েন্দা কার্যগুলি” গ্রহণ করে এবং প্রত্যেকের জন্য ছোট অঙ্কের অর্থ প্রদান করা হয়। যদিও আমাজন একটি মার্কিন ভিত্তিক কোম্পানী, শ্রমিক  সারা বিশ্ব থেকে আসে।এখান থেকে আপনি চাইলেই সহজেই ছোট ছোট কাজ করে আয় করতে পারবেন।

কর্মের ধরনের অন্তর্ভুক্ত হতে পারে

১.সার্ভের।
২.ব্লগ মন্তব্য।
৩.প্রতিলিপির গ্রহণ।
৪.সংক্ষিপ্ত সম্পাদনা এবং লেখার কাজ।
৫.কীওয়ার্ড অনুসন্ধানগুলি।
৬.ফটো ক্যাপশন এবং ট্যাগিং।

এভাবে কাজ করার অভিজ্ঞতার মাধ্যমে, আপনি কেবল আপনার সোফায় বসে টেলিভিশন দেখার সময় কাজ করে কয়েক ডলার উপার্জন করতে পারবেন।youtube job

২.ইউটিউব/Youtube 

ইউটিউব থেকে আয় করার উপায়

ইউটিউব হচ্ছে সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট। ইউটিউব এ যে কেউ তার ইচ্ছামত যে কোনও বিষয়ে ভিডিও পোস্ট করতে পারে।মনে করুন, আপনি প্রতিদিন কি কি করেন সেটার উপর ভিডিও করেন এবং সেই ভিডিওতে একটু বিনোদন/উপদেশ মূলক/জ্ঞানমূলক করে তুলন যা মানুষের উপকারে আসবে।

আরও পড়ুন- ইমেইল মার্কেটিং কি? ইমেইল মার্কেটিং শেখার সহজ উপায় দেখে নিন-কীল্ক করে দেখে নিন! 

এভাবে আপনি যদি আপনার ভিডিওগুলিতে বিজ্ঞাপন দিতে সক্ষম করে থাকেন তবে আপনি প্রতি হাজার ভিডিও ভিউে প্রায় ১ ডলার থেকে ৫ ডলার আয় করতে পারবেন। আপনার যত বেশি ভিডিও রয়েছে,তত বেশি ভিউ আপনি উপার্জন করতে পারবেন। তাই যদি আপনি প্রচুর ভিডিও রেকর্ড করেন এবং ভিউয়ারশিপ তৈরি করেন তাহলে আপনি এখান থেকে ভালো একটা অঙ্কের অর্থ পেয়ে যাবেন।

আরও দেখুন-ডাঁটা এন্ট্রি কি? ডাঁটা এন্ট্রি করে কিভাবে আপনি মাসে ৩০০-৪৫০ ডলার ইনকাম করবেন দেখে নিন!-কিল্ক করুন- 

user testing jobs

৩.User Testing Jobs

এখানে অ্যাকাউন্ট খুলে ভিডিও টেস্ট সমাপ্ত করার পর আপনি ইমেলে নতুন ভিডিও টেস্টের নোটিফিকেশন পেতে শুরু করবেন। তারা আপনাকে একটা ওয়েবসাইটের রিভিউ বা টেস্ট করার কাজ দেবে আর সেটা সফলভাবে সম্পন্ন করার পাশাপাশি আপনাকে আপনার কম্পিউটারের স্ক্রিন শর্ট তুলে তাদেরকে পাঠাতে হবে।

আরও পড়ুন-ডেটা সায়েন্স কী? ডেটা সায়েন্স কিভাবে শিখবেন এবং কেন শিখবেন-কীল্ক করে দেখে নিন! 

প্রতিটি ওয়েবসাইট টেস্ট করতে ১৫ থেকে ২০ মিনিট সময় লাগবে। মূলত: ওয়েবসাইটি ভিজিট করে টেস্ট (User Testing on Websites)করে দেখতে হবে, একজন ইউজারের জন্য ওয়েবসাইটি কতটা গুরুত্বপূর্ণ বা ইউজার ফ্রেন্ডলি। আর প্রতিটি ওয়েবসাইটের টেস্টের জন্য তারা আপনাকে ১০ থেকে ১৫ ডলার বা ১ হাজার টাকা থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা পেমেন্ট দেবে।photography imcome

৪.ফোটোলিয়া

ফটোলিয়া আপনাকে স্টক ফটোগ্রাফি ব্যবহারের জন্য নেওয়া ফটো বিক্রি করতে দেয়। উদাহরণস্বরূপ, যদি কোনও প্রকাশক কোনও সৈকতের ছবি সন্ধান করে এবং আপনি এই জাতীয় চিত্র আপলোড করেন তবে প্রকাশক সেই ছবিটি তার প্রকাশনাতে ব্যবহার করার অধিকার কিনতে ফটোলিয়া ব্যবহার করতে পারেন এবং আপনি সেই অর্থের একটি টাকা পাবেন। কোনও ফটোগ্রাফি শখের জন্য এভাবে আপনার সেরা ছবিগুলির জন্য কয়েক ডলার উপার্জনের এটি দুর্দান্ত উপায়।swabugs income

৫.Swagbucks

সোয়াগবাক্স সম্ভবত অনলাইন জরিপ সাইটগুলির মধ্যে সর্বাধিক জনপ্রিয় এবং সবচেয়ে বৈধ। ভিডিও দেখা থেকে শুরু করে অনলাইন সার্ভে কিংবা(Swagbucks App) গেম খেলাসহ নানা ধরণের মজার মজার কাজ আছে এই ওয়েবসাইটে যা আপনাকে একই সাথে এগুলো করার জন্য পেমেন্টও করবে। অনলাইনে আপনি যে কাজগুলো সচরাচর এমনিই করে থাকেন, সেগুলোই করে প্রতিদিন এ ওয়েবসাইটে ২৫ থেকে ১০০ ডলার বা ২০০০ টাকা থেকে ৮০০০ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

আরও দেখুনকিভাবে উবারে ড্রাইভার হিসেবে জয়েন করবেন এবং মাসে হাজার হাজার টাকা আয় করবেন!-কিল্ক করুন- 

এছাড়াও কোন গ্রাহক জরিপে অংশ নেওয়ার জন্য সোয়াগবাক্স আপনাকে অল্প পরিমাণে অর্থ প্রদান করবে। কোন সংস্থাগুলি তখন কী ধরণের পণ্যগুলি তৈরি এবং বিক্রয় করতে পারে তা নির্ধারণের জন্য ব্যবহার করে। আপনি দিনে বেশ কয়েকটি সমীক্ষায় অংশ নিতে পারেন এবং অ্যামাজন, টার্গেট, আইটিউনস এভাবে এই টুকিটাকি কাজ করে আপনি ভালো অঙ্কের টাকা পেতে পারেন।fusion cash income

৬. FushionCash

Fusioncash Review

আমরা সবাই প্রতিদিন বিভিন্ন ওয়েবসাইট এ বিভিন্ন ধরণের ভিডিও গান ইত্যাদি দেখে থাকি কিন্তু আমরা যদি এর পাশাপাশি এই FushionCash ওয়েবসাইটিতে তাদের ভিডিও দেখি এবং এফএম রেডিও শুনি তাহলে এরা আমাদের ভালো একটা অঙ্কের রেভেনু পেমেন্ট করবে। তবে এই টিভি এবং রেডিও তাদের নিজস্ব নয়, থার্ড পার্টির যাদের কাছ থেকে তারা পেমেন্ট পায় আর তাদের দর্শক ও শ্রোতাদের পেমেন্ট দেয়।skrill share

৭.স্কিলশেয়ার

স্কিলশেয়ার এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি একটি অনলাইন ক্লাস শিখিয়ে দিতে পারেন এবং এর জন্য অর্থ প্রদান করতে পারেন। আপনি যে বিষয় সম্পর্কে জানেন সে সম্পর্কে আপনি সিরিজ ভিডিও রেকর্ড করেছেন – জনপ্রিয় বিষয়গুলির মধ্যে কারুশিল্প, ফিল্ম, ফ্যাশন এবং রান্না অন্তর্ভুক্ত রয়েছে এবং তারপরে আপনার শ্রেণীর সাথে সম্পর্কিত স্কিলসারে ফোরামগুলিতে অংশ নিতে পারেন।

বিনিময়ে, আপনার ক্লাস নেওয়া লোকদের কাছ থেকে আপনি অর্থের অংশ পাবেন। শুরু করার জন্য কোনও শিক্ষণ ডিগ্রি প্রয়োজন হয় না এবং সাইটটি বলছে শিক্ষকরা বছরে গড়ে ৩,৫০০ ডলার আয় করতে পারেন।virtual asistant jobs

৮. ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট

বিশ্বজুড়ে লক্ষ লক্ষ লোক ভার্চুয়াল সহকারী (ভিএ)(Virtual Assistant Jobs) হিসাবে বাড়ি থেকে কাজ করছে এবং সময় ও দক্ষতার উপর নির্ভর করে ভাল অঙ্কের টাকা উপার্জন করছে। ভার্চুয়াল সহকারী হিসেবে কাজ করার জন্য আপনি ভার্চুয়াল সহকারী হিসাবে কাজ করতে বিভিন্ন ধরনের ওয়েবসাইটগুলিতে সাইনআপ করতে পারেন এবং প্রতি ঘন্টায় $ 5- $ 10 উপার্জন করতে পারেন।

আপনার উল্লেখযোগ্য দক্ষতা ও বাজেটের ভিত্তিতে লোকজন আপনাকে কাজ দেবে এবং উভয়ের মধ্যে নির্ধারিত হারের ভিত্তিতে আপনাকে অর্থ প্রদান করবে। এখানে আপনাকে সারাদিন কাজ করতে হবে না।আপনি চাইলে দিনে 2 ঘন্টা, 8 ঘন্টা বা দিন কাজ করতে পারেন।GPT jobs income

৯.জিপিটি জব

জিপিটি’র মিনিং হলো- গেট পেইড টু টাস্ক, টাকার বিনিময়ে কারো কাজ করে দেওয়া। জিপিটি এবং অ্যাড রিডিং প্রায় কাছাকাছি ধরণের কাজ কিন্তু কাজের ধরণে সামান্যতম কিছু পার্থক্য আছে।অনলাইনে খুঁজলে এ ধরণের কিছু বিশ্বস্ত ওয়েবসাইট পাবেন যারা তাদের মেম্বারদেরকে এই ধরণের কাজ দিয়ে যাচ্ছেন।

আপনি সহজেই সে-সব ওয়েবসাইট থেকে কাজ পেতে পারেন। কিন্তু কাজ পেতে হলে আপনাকে অবশ্যই ওয়েবসাইটগুলোতে নিবন্ধন করতে হবে (সাইন আপ) করতে হবে। এভাবে আপনি ছোট ছোট কাজ করে ভালো অঙ্কের রেভিনিউ পেতে পারেন খুব সহজেই।

এই সমস্ত ওয়েবসাইটই অনলাইনে কিছু অতিরিক্ত অর্থ উপার্জনের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ দেয়।

পোস্টটি ভালো লাগলে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিবেন এবং Factarticle.com এর সঙ্গেই থাকার চেষ্টা করবেন।

BY:Factarticle.com

9 Replies to “আপনি আপনার সোফায় বসে অর্থ উপার্জন করুন ৯ টা ওয়েবসাইট থেকে, না দেখলে মিস করবেন!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *